১১:১৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাতের যেসব খাবার ঘুমের বারোটা বাজায়

বার্তা ডেস্ক ॥  শারীরিক সুস্থতা এবং সারাদিন উৎফুল্লতার সঙ্গে কাটানোর জন্য রাতে ভালো ঘুম হওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। রাতে সাত-আট ঘণ্টা না ঘুমালে স্বাস্থ্য নষ্ট হয়। অপর্যাপ্ত ঘুম একজন ব্যক্তির উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস, স্থূলতা, বিষণ্নতা, হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ায়।

অনেকেরই সারা রাত জেগে থাকা এবং সকালে ঘুমানোর অভ্যাস আছে। এই ধরনের বেশিরভাগ লোকই সারারাত জেগে থাকার কারণ হিসাবে ঘুম না হওয়ার কথা উল্লেখ করেন। আপনি কি জানেন যে, রাতের কিছু খাবার ঘুম না হওয়ার কারণ হতে পারে।

হ্যাঁ, এমন অনেক খাবার এবং শাকসবজি রয়েছে, যেগুলো রাতে খেতে নিষেধ করেন বিশেষজ্ঞরা। এই খাবারগুলো আপনার স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী, কিন্তু ঘুমের জন্য নয়। তাই সেসব খাবার রাতে খাওয়া মোটেই ভালো নয়। চলুন জেনে নেই সেসব খাবার সম্পর্কে।

​ব্রকলি

ব্রকলি স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। তবে রাতের খাবারে এটি না রাখার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। ব্রকলিতে থাকা ফাইবার হজম হতে বেশি সময় নেয়। ফলে আপনার রাতের ঘুমের ব্যাঘাত ঘটতে পারে। এর পাশাপাশি সকালে গ্যাস বা অ্যাসিডিটির সমস্যাও হতে পারে।

​রাজমা​

এটি এক ধরনের সিমের বিচি। রাজমা ছাড়াও এটিকে কিডনি বিন বলা হয়। অনেকটা কিডনির মতো দেখতে, সে কারণে। ইউএস ডিপার্টমেন্ট অব এগ্রিকালচারের মতে, কিডনি বিনে রয়েছে আয়রন, কপার, ফোলেট, ম্যাগনেসিয়াম, ক্যালসিয়াম এবং ভিটামিন-সি এর মতো পুষ্টিকর উপাদান।

এছাড়া এতে ফাইবারও পাওয়া যায়, যা পরিপাকতন্ত্রকে শক্তিশালী করার পাশাপাশি কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো সমস্যা থেকে মুক্তি দেয়। এত উপকারী হওয়া সত্ত্বেও, রাজমা রাতে না খাওয়ার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। কারণ এতে থাকা ফাইবার বেদনাদায়ক গ্যাস তৈরি করতে পারে।

টমেটো

রাতে টমেটো খেলে আপনার ঘুমের উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। এটি মূলত টাইরামিনের কারণে হয়, এক ধরনের অ্যামিনো অ্যাসিড, যা আপনার মস্তিষ্কের কার্যকলাপ বাড়ায় এবং ঘুম আসতে বিলম্বিত করে।

এছাড়া টমেটোতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকায় রাতে ঠিকমতো হজম না হলে অ্যাসিডিটিও হয়। তাই বিশেষজ্ঞরা রাতের খাবারে এটি না রাখার পরামর্শ দেন।

​বেগুন

টমেটোর মতো বেগুনে উচ্চ পরিমাণে অ্যামিনো অ্যাসিড টাইরামিন থাকে, যা নোরপাইনফ্রিনের মাত্রা বাড়ায়, একটি উদ্দীপক যা শরীরকে সক্রিয় রাখে। তাই এটি রাতের খাবারে অন্তর্ভুক্ত করা উচিত নয় বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

শসা

শসা ৯৫ শতাংশ পানি দিয়ে তৈরি। বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রচুর পরিমাণে শসা খাওয়া অবশ্যই আপনাকে পূর্ণ এবং পরিতৃপ্ত বোধ করে। মেদ ঝরিয়ে ওজন কমায়। তবে এগুলো রাতে এড়ানো উচিত। কারণ, রাতে শসা খেলে পেট ফোলা এবং ঘুমের সমস্যা হতে পারে।

​ফুলকপি

ফুলকপি সাধারণভাবে স্বাস্থ্যের জন্য খুব ভালো বলে ডায়েটে রাখার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। তবে ঘুমানোর আগে এটি খাওয়া উচিত নয়। এই সবজি আপনার ভালো ঘুমের ক্ষমতায় হস্তক্ষেপ করতে পারে। কারণ এতে থাকা ফাইবার ঘুমানোর সময়ও হজম হয় না।

​দই

বিশেষজ্ঞদের মতে, দই স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। তবে রাতে খাওয়া উচিত নয়। এর প্রভাব গরম থাকে এবং হজম হতেও সময় লাগে। যার কারণে আপনি সারারাত অস্থির বোধ করতে পারেন। এছাড়া আয়ুর্বেদ বলে, রাতে দই খাওয়া ভালো নয়। কারণ এটি কফের বিকাশ ঘটায়।

Add

আপলোডকারীর তথ্য

Barisal Sangbad

বরিশাল সংবাদের বার্তা কক্ষে আপনাকে স্বাগতম।