১০:২৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিবাহবার্ষিকীতে উপহার না পেয়ে ঘুমন্ত স্বামীকে ছুরিকাঘাত

বিবাহবার্ষিকী উপলক্ষে স্বামীর কাছ থেকে কোনো উপহার না পেয়ে ক্ষুব্ধ হন স্ত্রী। এই রাগে তিনি ঘুমন্ত স্বামীকে ছুরি মেরে বসেন। স্ত্রীর ছুরিকাঘাতে আহত স্বামী প্রাণে বেঁচে গেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি ভারতের বেঙ্গালুরুতে। এ ঘটনায় হত্যাচেষ্টার অভিযোগে স্ত্রীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছেন স্বামী।

স্ত্রীর ছুরিকাঘাতে আহত কিরণের (ছদ্মনাম) বয়স ৩৭ বছর। তিনি একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। তার স্ত্রী সন্ধ্যা (ছদ্মনাম) একজন গৃহিণী। তার বয়স ৩৫ বছর।

২৭ ফেব্রুয়ারি মধ্যরাতে আহত অবস্থায় কিরণ পুলিশকে বলেন, তিনি রাতে ঘুমাচ্ছিলেন। হঠাৎ সন্ধ্যা রান্নার কাজে ব্যবহৃত একটি ছুরি দিয়ে তাকে আঘাত করেন। আঘাতটি তার হাতে লাগে।

ঘুমের মধ্যে স্ত্রীর আকস্মিক ছুরিকাঘাতে কিরণ প্রথমে হতচকিত হয়ে পড়েন। তাকে আবার ছুরিকাঘাত করার আগেই তিনি ধাক্কা মেরে সন্ধ্যাকে সরিয়ে দেন।

পরে প্রতিবেশীদের সহায়তায় চিকিৎসার জন্য কিরণ স্থানীয় একটি বেসরকারি হাসপাতালে যান। কিরণের ছুরিকাঘাতে আহত হওয়ার বিষয়টি পুলিশকে জানান চিকিৎসকরা।

পুলিশের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বলেন, সন্ধ্যার বিরুদ্ধে ১ মার্চ থানায় মামলা হয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে।

পুলিশের ওই কর্মকর্তা বলেন, এটি একটি পারিবারিক বিষয়। তারা স্বামী-স্ত্রীকে নিজেদের মধ্যে আলোচনার জন্য সময় দিয়েছেন। আলোচনা শেষে তাদের আবার পুলিশের কাছে আসতে বলেছেন।

পুলিশের তদন্তে দেখা গেছে, দাদার মৃত্যুর কারণে এবারের বিবাহবার্ষিকীতে সন্ধ্যাকে কোনো উপহার কিনে দিতে পারেননি কিরণ। এর আগে এমনটা কখনো হয়নি। বিবাহবার্ষিকীতে উপহার না পেয়ে সন্ধ্যা ক্ষুব্ধ হয়েছিলেন।

অবশ্য কিরণ পুলিশকে বলেছেন, ব্যক্তিগত কিছু বিষয় নিয়ে আগে থেকেই বিপর্যস্ত ছিলেন তার স্ত্রী। তিনি স্ত্রীকে কাউন্সেলিং করানোর কথাও ভেবেছিলেন।

ট্যাগস :

Add

আপলোডকারীর তথ্য

Barisal Sangbad

বরিশাল সংবাদের বার্তা কক্ষে আপনাকে স্বাগতম।