১১:৪২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মেহেন্দিগঞ্জে স্কুল শিক্ষককে কুপিয়েছে সন্ত্রাসীরা

বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জে স্কুল শিক্ষককে কুপিয়ে জখম করেছে স্থানীয় সন্ত্রাসীরা। শুক্রবার সকাল পৌনে ১১টার দিকে উপজেলার কজিরহাট থানাধীন লতা লঞ্চঘাট এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত শিক্ষক হুমায়ুন কবির (৪৫) কে হিজলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
আহত হুমায়ুন কবির জয়নগর ইউনিয়নের কাদীরাবাদ গ্রামের কাঞ্চন আলী ফকিরের ছেলে এবং হরিনাথপুর গার্ল্স স্কুলের সিনিয়র সহকারী শিক্ষক। এই ঘটনায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ নিয়েছেন আহতের পরিবার।
আহত শিক্ষক হুমায়ুন কবিরের ভাই আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, লতা লঞ্চঘাট এলাকায় তাদের একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বা দোকান রয়েছে। যা অন্তত ২০-২৫ বছর ধরে তারাই পরিচালনা করে আসছেন। সম্প্রতি ঘূর্ণিঝড়ে দোকানটি ভেঙে যায়।
মামুন বলেন, ‘শুক্রবার সকালে ভেঙে যাওয়া দোকানটি মেরামত করতে যান তার বড় ভাই শিক্ষক হুমায়ুন কবির। তখন প্রতিবেশী মৃত গয়জদ্দিন ফকিরের ছেলে নাসির উদ্দিন ফকির, নেছার ফকির ও ফজর আলী ফকির দোকানটি নিজেদের দাবি করে মেরামত কাজে বাধা দেয়।
এ নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায় শিক্ষক হুমায়ুন কবিরকে মারধর করেন তারা। এসময় নাসির উদ্দিনের হাতে থাকা চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করা হয় শিক্ষক হুমায়ুন কবিরকে। তার ডাক-চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এলে পালিয়ে যায় হামলাকারীরা। এসময় ঘটনাস্থল থেকে কুপিয়ে জখমের কাজে ব্যবহৃত রক্তাক্ত চাপাতি উদ্ধার করে থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ‘অভিযুক্ত নাসির উদ্দিন এবং তার অপর ভাইয়ের বিরুদ্ধে থানায় হত্যাসহ একাধিক মামলা রয়েছে। এলাকায় সন্ত্রাস এবং জুলুমের রাজত্ব করে তুলেছেন নাসির ও তার ভাইয়েরা। তাই শিক্ষককে কুপিয়ে জখমের ঘটনায় সুষ্ঠু বিচারের দাবি করেছেন তারা।
এ প্রসঙ্গে কাজিরহাট থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুর রহমান বলেন, ‘শিক্ষককে কুপিয়ে জখমের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ ফোর্স পাঠানো হয়েছে। তারা সেখান থেকে একটি চাপাতি উদ্ধার করেছে। তাছাড়া এই ঘটনায় থানায় একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।

ট্যাগস :

Add

আপলোডকারীর তথ্য

Barisal Sangbad

বরিশাল সংবাদের বার্তা কক্ষে আপনাকে স্বাগতম।