১২:৫৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ৬ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আপত্তিকর ভিডিও, চেয়ারম্যান প্রার্থীর দাবি ‘সুপার এডিট’

বরিশালের গৌরনদী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী মনির হোসেন মিয়ার আপত্তিকর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। প্রার্থীর অভিযোগ, বিজয় নিশ্চিত জেনে ‘সুপার এডিট’ করে প্রতিপক্ষ ওই ভিডিও ছড়িয়েছে।

সোমবার ২ মিনিট ৩৭ সেকেন্ডের একটি ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। যেখানে মনির হোসেন মিয়ার মতো একজনকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখা যায় বলে দাবি করছে একটি পক্ষ।

তবে গৌরনদী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী মনির হোসেন মিয়া অভিযোগ করে বলেন, উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আমি মনোনয়নপত্র দাখিল করার পর থেকে আমার জনসমর্থনে ঈর্ষান্বিত হয়ে আমার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হারিছুর রহমান আমার বিরুদ্ধে একের পর এক ষড়যন্ত্র করে আসছেন। তারই অংশ হিসেবে সুপার এডিট করে আমার আপত্তিরকর ভিডিও তৈরি করে হারিছুর রহমানের নির্দেশে তার কর্মীসমর্থকরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দিচ্ছে।

এ ঘটনায় আমি সাইবার আইনে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছি।

যদিও হারিছুর রহমান দাবি করেছেন, মনির হোসেনের অশ্লীল ভিডিও ভাইরাল হওয়ার কথা তিনি শুনেছে।

এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু তিনি জানেন না। আর তার বিরুদ্ধে করা প্রার্থী মনির হোসেনর অভিযোগও সত্য নয়।

এ বিষয়ে গৌরনদী উপজেলা পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ও জেলা মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দা মনিরুন নাহার মেরী বলেন, সন্ত্রাসমুক্ত গৌরনদী গড়তে আমরা চেয়ারম্যান প্রার্থী মনির হোসেন মিয়াকে আনুষ্ঠানিকভাবে সমর্থন জানিয়েছি। মনির হোসেনের বিজয় নিশ্চিত জেনে এবং মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়াতে ফেসবুকে ভিডিওটি ছড়ানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গৌরনদী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মোট চারজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন। তাদের মধ্যে মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়া একজনসহ মোট দুজন প্রার্থী মনির হোসেন মিয়াকে সমর্থন জানিয়ে ভোটের মাঠ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।

ট্যাগস :

Add

আপলোডকারীর তথ্য

Barisal Sangbad

বরিশাল সংবাদের বার্তা কক্ষে আপনাকে স্বাগতম।