০১:৩৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ৫ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বরিশালে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে নিহত নারী

বরিশালের আগৈলঝাড়ায় অরিক্ষতি বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে এক গৃহবধূ নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী গৌরনদী-আগৈলঝাড়া-গোপালগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কে গাছ ফেলে অবরোধ করেন। আজ সোমবার বেলা ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় ৩০ মিনিট সড়কে যান চলাচল বন্ধ ছিল। পরে পুলিশ গিয়ে সড়ক থেকে গাছ সরিয়ে যান চলাচল স্বাভাবিক করে। এ ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফারিহা তানজিন, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলম চাঁদ ও ইউপি চেয়ারম্যান বিপুল দাস ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

নিহত নারীর নাম নাজনিন বেগম (৩৫)। তিনি ফুল্লশ্রী গ্রামের হোটেল ব্যবসায়ী হেমায়েত ফকিরের স্ত্রী। এই দম্পতির চার সন্তান রয়েছে। স্থানীয় ও সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে, আজ সোমবার বেলা ১১টায় উপজেলার বাইপাস সড়কের ফুল্লশ্রী মোড়ে (ফিলিং স্টেশনের উত্তর পাশে) নির্মাণাধীন টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের জায়গায় ছাগল চড়াতে যান নাজনিন বেগম। এ সময় ছাগলের রশি পড়ে থাকা বিদ্যুতায়িত তারে জড়িয়ে যায়।

নাজনিন বেগম রশি ছাড়াতে গিয়ে নিজেই বিদ্যুতায়িত হয়ে পড়েন। এ সময় নাজনিনের সঙ্গে থাকা ৬ বছরের মেয়ে ফাইজা চিৎকার করলে স্থানীয় এনামুল ফকিরসহ ৩-৪ জন তাঁকে উদ্ধার করে গুরুতর অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. শিশির কুমার গাইন তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

গৃহবধূর মৃত্যুর সংবাদ শুনে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী গৌরনদী-আগৈলঝাড়া-গোপালগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের ফুল্লশ্রী নামক স্থানে গাছ ফেলে সড়ক অবরোধ করে। এ সময় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের টিনশেড ঘর ভাঙচুর করা হয়। ঘটনা শুনে পুলিশের এসআই শফিক উদ্দিন সরকার গিয়ে সড়ক থেকে গাছ সরিয়ে গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক করেন।

এদিকে গৃহবধূ নাজনিনের মৃত্যুর সংবাদ শুনে তাৎক্ষণিক ইউএনও ফারিহা তানজিন ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়াসহ নিতের স্বামী হেমায়েত ফকিরের কাছে সরকারি তহবিল থেকে ২০ হাজার টাকা দেন। উপজেলার বাইপাস সড়কের ফুল্লশ্রী মোড়ে সরকার থেকে টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ নির্মাণের জন্য কোহিনুর এন্টারপ্রাইজ নামে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান একটি টিনশেড ঘর তৈরি করে। ওই ঘরে নির্মাণসামগ্রী রাখা আছে। ওই ঘর থেকে বিদ্যুতের সংযোগ নিয়ে সেখান কাজ চলছিল। সেখানে নিয়োগ দেওয়া নৈশপ্রহরী প্রতিদিন ভোরে কাজ শেষে বিদ্যুতের লাইন বন্ধ করে দেন। কিন্তু নৈশপ্রহরী গতকাল রাতে ওই স্থানে না থেকে বাড়িতে ছিলেন।

এ ব্যাপারে আগৈলঝাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলম চাঁদ জানান, নৈশপ্রহরী হৃদয়ের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। উল্লেখ্য, ওই একই স্থানে এক বছর পূর্বে মাছ শিকার করতে গিয়ে বিদ্যুতায়িত হয়ে আব্দুর রশিদ ফকির নামে একজনের মৃত্যু হয়েছিল।

ট্যাগস :

Add

আপলোডকারীর তথ্য

Barisal Sangbad

বরিশাল সংবাদের বার্তা কক্ষে আপনাকে স্বাগতম।