০৩:১২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বরিশাল মেডিকেলে সহকারী পরিচালক ও উপাধ্যক্ষের মারামারি!

বরিশাল শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসপাতালে শীর্ষ পদধারী দুই চিকিৎসক প্রকাশ্যে মারামারি করেছেন বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার (৯ জুলাই) বেলা সাড়ে ১২টায় হাসপাতালের দরপত্র সংক্রান্ত একটি সভায় তর্কাতর্কির এক পর্যায়ে তারা হাতাহাতিতে লিপ্ত হন। ওই সভায় হাসপাতালের পরিচালক ডা. সাইফুল ইসলামসহ চিকিৎসক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

দুই চিকিৎসক হলেন- হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. রেজওয়ানুর আলম (অর্থ ও ভাণ্ডার) ও কলেজের উপাধ্যক্ষ অর্থপেডিক্স বিভাগের প্রধান ডা. জিএম নাজিমুল হক। ডা. নাজিমুলের লিখিত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ডা. রেজওয়ানুরকে কারন দর্শানোর (শোকজ) নোটিশ দেয়া হয়েছে।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, হাসপাতাল স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতির কক্ষে দরপত্র সংক্রান্ত একটি সভা হয়। সভার একপর্যয়ে দায়িত্ব পালন নিযে কথা কাটাকাটিতে লিপ্ত হন ডা. রেজওয়ানুর ও ডা. নাজিমুল। তখন সহকারী পরিচালক রেজয়ানুর অভিযোগ করেন, কলেজের অধ্যাপক চিকিৎসকরা হাসপাতালের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করেন না। তারা হাসপাতালের ওয়ার্ড নিয়মিত রাউন্ড দেন না। এনিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ডা. নাজিমুল ও ডা. রেজওয়ানুর হাতাহাতিতে জড়ান বলে জানা গেছে। তখন অন্যরা তাদের নিবৃত্ত করেন।

ডা. রেজওয়ানুর সাংবাদিকদের কাছে অধ্যাপক চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে সত্য জানিয়ে বলেন, সভায় তিনি ওইসব অভিযোগ করায় উপাধ্যক্ষ ডা: নাজিমুল তার ওপর চড়াও হন।

ডা. নাজিমুল কলেজ অধ্যক্ষর কাছে লিখিত অভিযোগে জানান, নিচস্তরের পদধারী হয়েও সভায় তার সঙ্গে অসাদরন করেছেন ডা. রেজওয়ানুল।

অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ডা. রেজওয়ানুরের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে কলেজ অধ্যক্ষ ডা. মো. ফয়জুল বাশার হাসপাতাল পরিচালককে লিখিত চিঠি দেন। তবে ঘটনার পর পরই অধ্যক্ষ সাংবাদিদের জানিয়েছিলেন, তেমন কিছু হয়নি। দুজনের মধ্যে ভুলবোঝাবুঝি মাত্র।

এ ঘটনায় সহকারী পরিচালক ডা. রেওজয়ানুরকে শোকজ নোটিশ দিয়েছেন হাসপাতাল পরিচালক ডা. সাইফুল ইসলাম। আগামী ৩ কর্মদিবসের রেজওয়ানুলকে জবাব দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

ট্যাগস :

Add

আপলোডকারীর তথ্য

Barisal Sangbad

বরিশাল সংবাদের বার্তা কক্ষে আপনাকে স্বাগতম।