০২:৩৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা রবিবার

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় অনুষ্ঠান শ্রী শ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উৎসব শুরু হচ্ছে আগামীকাল রোববার (৭ জুলাই) জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা। বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রাসহ নানা ধর্মীয় অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আনন্দমুখর পরিবেশে ৯ দিনব্যাপী শ্রী শ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা মহোৎসবের আয়োজন করা হয়েছে।

রোববার বিকেল ৩টায় ইসকনের প্রধান কার্যালয় স্বামীবাগের আশ্রম থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা মধ্যে দিয়ে ঢাকেশ্বরী মন্দির যাবে জগন্নাথ দেবের রথ। আগামী ১৫ জুলাই বিকেল ৩টায় ঢাকেশ্বরী মন্দির থেকে উল্টো রথের বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার মধ্য দিয়ে এই উৎসব শেষ হবে।

সারা বিশ্বের সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিশ্বাস, জগন্নাথ দেব হলেন- জগতের অধীশ্বর। জগৎ হচ্ছে বিশ্ব আর নাথ হচ্ছেন ঈশ্বর। তাই জগন্নাথ দেব হচ্ছেন জগতের ঈশ্বর। তার অনুগ্রহ পেলে মানুষের মুক্তি লাভ হয়। জীবরূপে তাকে আর জন্ম নিতে হয় না। এ বিশ্বাস থেকেই রথের ওপর জগন্নাথ দেবের প্রতিমূর্তি রেখে যাত্রা করেন সনাতন ধর্মাবলম্বীরা। শুভ রথযাত্রা উপলক্ষে ঢাকায় আন্তর্জাতিক কৃষ্ণ ভাবনামৃত সংঘ (ইসকন) হরিনাম সংকীর্তন, বিশ্ব শান্তি ও মঙ্গল কামানায় অগ্নিহোত্র যজ্ঞ, মহাপ্রসাদ বিতরণ, আলোচনা সভা, শোভাযাত্রা, পদাবলি কীর্তন, আরতি কীর্তন, ভগবত কথা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, শ্রীমদ্ভাগবত গীতা পাঠ, ধর্মীয় চলচ্চিত্র প্রদর্শন ও ধর্মীয় নাটক মঞ্চায়নসহ নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।

 

ইসকনের উৎসব উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক দ্বিজমনি গৌরঙ্গ দাস বলেন, বিশ্বশান্তি ও মঙ্গল কামনায় অগ্নিহোত্র যজ্ঞের মধ্য দিয়ে রোববার উৎসবের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে। এদিন দুপুর ১২টায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এবং বিশেষ অতিথি ভারতীয় হাইকমিশনার প্রণয় কুমার ভার্মা অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন।

আলোচনা সভা শেষে ঢাকায় নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার প্রণয় কুমার ভার্মা রথযাত্রার উদ্বোধন করবেন। এরপর বর্ণাঢ্য সাজে তিনটি বিশাল রথে জগন্নাথ দেব, শুভদ্রা ও বলরামের প্রতিকৃতিসহ শোভাযাত্রা বের হবে।

শোভাযাত্রা জয়কালি মন্দির, মতিঝিল শাপলা চত্বর, দৈনিক বাংলার মোড়, গোলাপ শাহ্ মাজার, হাইকোর্ট মোড়, দোয়েল চত্বর, রমনা কালীমন্দির, টিএসসি, জগন্নাথ হল ও পলাশী হয়ে ঢাকেশ্বরী মন্দিরে গিয়ে শেষ হবে।

এ ছাড়া রাজধানীর তাঁতীবাজারের জগন্নাথ জিউঠাকুর মন্দিরের রথযাত্রা তাঁতীবাজারের কোতোয়ালি রোড থেকে শুরু হয়ে ইসলামপুর, সদরঘাট মোড় ও ইংলিশ রোড হয়ে তাঁতীবাজার দুর্গামণ্ডপ প্রাঙ্গণে শেষ হবে। জয়কালী রোডের রামসীতা মন্দিরেও বিস্তারিত অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করা হয়েছে। বিকেলে এ মন্দির থেকে রথযাত্রা হবে। শাঁখারীবাজার একনাম কমিটির রথযাত্রাটি শুরু হয়ে মাধব গৌড়ের মঠে শেষ হবে।

রথযাত্রা উপলক্ষে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ, মহানগর সার্বজনীন পূজা কমিটি, বাংলাদেশ ছাত্র-যুব ঐক্য পরিষদের পক্ষ থেকে সর্বস্তরের মানুষকে শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে।

এদিকে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আজ বেলা ৩টায় স্বামীবাগ আশ্রম (ইসকন) থেকে রথযাত্র শুরু হয়ে জয়কালি মন্দির মোড়-ইত্তেফাক মোড়-শাপলা চত্ত্বর-দৈনিক বাংলা মোড়-রাজউক ক্রসিং-গুলিস্তান-গোলাপশাহ মাজার-পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স-সরকারি কর্মচারী হাসপাতাল-হাইকোর্ট মাজার-দোয়েল চত্ত্বর-কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার-জগন্নাথ হল-পলাশী মোড় হয়ে ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে গিয়ে শেষ হবে। ওই সময়ে উপরোক্ত রোডে চলাচলকারী যানবাহনবে বিকল্প রাস্তা ব্যবহার করার জন্য অনুরোধ করেছে ডিএমপি।

ট্যাগস :

Add

আপলোডকারীর তথ্য

Barisal Sangbad

বরিশাল সংবাদের বার্তা কক্ষে আপনাকে স্বাগতম।