০৪:২২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিয়ের দাবিতে কাওসারের বাড়িতে তরুণী

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে বিয়ের দাবিতে প্রেমিক কাওসারের বাড়িতে অনশন করছেন এক তরুণী। তরুণী বাড়িতে অবস্থান নিলে প্রেমিক কাওসার বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়।

সোমবার (২৪ জুন) রাত থেকে উপজেলার ২নং মির্জাগঞ্জ ইউনিয়নের পিপড়াখালী গ্রামের প্রেমিক কাওসার খানের বাড়িতে অবস্থান নেন তিনি। কাওসার খান ওই এলাকার ফরিদ খানের ছেলে।

ভুক্তভোগী তরুণী জানান, গত ৩ বছর আগে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে একই গ্রামের কাওসারের সঙ্গে আমার পরিচয় হয়। পরবর্তীতে তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ি। প্রেমের ফাঁদে ফেলে কাওসার তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে। সম্প্রতি কাওসার প্রেমের সম্পর্ক অস্বীকার ও বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় বাধ্য হয়েই তার বাড়িতে গিয়ে তিনি অনশন শুরু করেন। কিছুদিন আগে প্রেমিক কাওসার বিয়ে করার আশ্বাস দিলেও এখন সেই সম্পর্ক অস্বীকার করছে।

এদিকে প্রেমিক কাওসার ও তার পরিবারের সদস্যরা পলাতক থাকায় কোনোরকম যোগাযোগ করা যায়নি।

স্থানীয়রা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এলাকার কম বেশি সব মানুষই তাদের প্রেমের বিষয়ে অবগত আছে। ভুক্তভোগী ওই তরুণী বলেন, বারবার বিয়ের আশ্বাস দিয়ে আমাকে একাধিকবার ব্যবহার করেছে। এখন আমাকে বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় তার বাড়িতে এসেছি। কাওসার আমাকে বিয়ে না করলে এই বাড়ি থেকে কোথাও যাব না।

এ বিষয়ে মির্জাগঞ্জ থানার ওসি তদন্ত মো. হুমায়ুন কবির বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

স্থানীয়রা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এলাকার কম বেশি সব মানুষই তাদের প্রেমের বিষয়ে অবগত আছে। ভুক্তভোগী ওই তরুণী বলেন, বারবার বিয়ের আশ্বাস দিয়ে আমাকে একাধিকবার ব্যবহার করেছে। এখন আমাকে বিয়ে করতে রাজি না হওয়ায় তার বাড়িতে এসেছি। কাওসার আমাকে বিয়ে না করলে এই বাড়ি থেকে কোথাও যাব না।

এ বিষয়ে মির্জাগঞ্জ থানার ওসি তদন্ত মো. হুমায়ুন কবির বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Add

আপলোডকারীর তথ্য

Barisal Sangbad

বরিশাল সংবাদের বার্তা কক্ষে আপনাকে স্বাগতম।